Breaking News

হোমিওপ্যাথিক ঔষধের মাধ্যমে টিউমারের স্থায়ী মুক্তি

প্রিয় বন্ধুগণ,

নরম চর্বি জাতীয় টিউমার সম্পূর্ণ নিমূর্ল করার জন্য (আমার নির্দেশনা মতো) নিচে উল্লেখিত সাতটি হোমিওপ্যাথিক ঔষধ সেবন করুন। আমার প্রণীত এই ফরমূলাটি অনুসরন করলে শতকরা ৯৯ ভাগ টিউমার রোগী পু্রোপুরি নরম চর্বি জাতীয় টিউমার থেকে মুক্ত হবেন বলে আমি আশাবাদী। যদিও কিছু রোগী পু্রোপুরি নরম চর্বি জাতীয় টিউমারমুক্ত হবেন না ; তারপরও তারা অন্য যে-কোন চিকিৎসা পদ্ধতির চাইতে অন্তত দশগুণ ভালো রেজাল্ট পাবেন। এইভাবে ঔষধগুলি চক্রাকারে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে বারে বারে খাবেন (অর্থাৎ ৭ নাম্বার ঔষধটি খাওয়ার পরে আবার ১ নাম্বার থেকে একই নিয়মে খাওয়া শুরু করবেন)। হ্যাঁ, সকল হোমিওপ্যাথিক ঔষধই খালি পেটে খাওয়া ভালো ; তবে খালি পেটে খেতে ভুলে গেলে ভরা পেটেও খেতে পারেন। এই হোমিওপ্যাথিক ঔষধগুলো অন্য যে-কোন ঔষধের সাথে একত্রে খেতে পারবেন (হোক তা ট্যাবলেট, ক্যাপসুল বা ইনজেকশান) ; তাতে কোন সমস্যা হবে না। তবে অবশ্যই অন্য ঔষধগুলোর আধা ঘণ্টা আগে অথবা আধা ঘণ্টা পরে খাবেন। টিউমার ভালো হয়ে গেলে ঔষধগুলি বন্ধ করে দিন।জার্মানী বা আমেরিকার তৈরী হোমিওপ্যাথিক ঔষধ কেনার চেষ্টা করবেন।

এই সাতটি ঔষধের যে-কোনটিকে আপনি বাদ দিয়ে দিতে পারেন, যদি মনে করেন যে, সেটি কোন অনাকাঙিখত সমস্যার (যেমন- মারাত্মক ধরনের বুকজ্বালা, চুলকানি, ব্যথা, বমি ইত্যাদি) সৃষ্টি করছে অথবা স্থানীয় মার্কেটে পাওয়া যাচ্ছে না। অবশিষ্ট ঔষধগুলি তাদের প্রদত্ত সিরিয়াল বা ধারাক্রম অনুযায়ী খেতে থাকুন। ঔষধের শক্তি এবং মাত্রা সমপর্কে আমার নির্দেশনা পরিবর্তন করবেন না। তবে আমার নির্দেশিত শক্তি স্থানীয় মার্কেটে পাওয়া না গেলে আপনি তার কাছাকাছি শক্তির ঔষধ খেতে পারেন। প্রথমে নিম্ন শক্তির ঔষধ দিয়ে শুরু করবেন এবং পরবর্তী রাউন্ডে সম্ভব হলে ধীরে ধীরে শক্তি বাড়িয়ে খাবেন। মনে রাখবেন যে, হোমিওপ্যাথিক ঔষধের নামসমূহ হলো বিশ্বজনীন (অর্থাৎ এগুলো পৃথিবীর সকল দেশে একই নামে পাওয়া যায়)। এসব ঔষধের কোনটি যদি তরল আকারে পাওয়া না যায়, বরং তার পরিবর্তে বড়ি আকারে পাওয়া, তবে তা সমান মাত্রায় খান অর্থাৎ দশ ফোটার পরিবর্তে দশটি বড়ি করে খান। ঔষধ সব সময় তরল আকারে কেনার চেষ্টা করবেন এবং কিছু পানির সাথে মিশিয়ে খাবেন। কেননা হোমিওপ্যাথিক ঔষধ তরল আকারে খেলে ভালো ফল পাওয়া যায়।

অল্প কিছু রোগীর ক্ষেত্রে পুরোপুরি রোগমুক্তির জন্য (আমার ফরমুলা অনুযায়ী ঔষধ সেবনের পাশাপাশি) কোন একজন হোমিওপ্যাথিক বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে হতে পারে ; যিনি রোগীর শারীরিক ও মানসিক গঠন বিশ্লেষণ পূবর্ক আরো উৎকৃষ্ট ও মানানসই ঔষধ নিবার্চন করে প্রয়োগ করবেন। পুরোপুরি রোগমুক্তির জন্য এই ঔষধগুলি আপনাকে কমপক্ষে দুই বছর অথবা আরও বেশী কিছু সময় খেতে হতে পারে। ইনশায়াল্লাহ্‌ আমার ফরমুলা আপনার শরীরকে বিষমুক্ত করে তার আগেকার ভাল অবস্থায় ফিরিয়ে নিয়ে যাবে (এবং ফলস্রুতিতে মৃত্যুর আগ পযর্ন্ত আপনাকে আর টিউমারের ঔষধ খেতে হবে না)। আপনি যখন নরম চর্বি জাতীয় টিউমার থেকে মুক্ত হয়ে যাবেন, তখন সবগুলি ঔষধ খাওয়া বন্ধ করে দিবেন। (বিঃ দ্রঃ- অবশ্যই হালকা ব্যায়াম করবেন, প্রচুর বিশুদ্ধ পানি খাবেন, বেশী বেশী ফল-ফ্রুট খাবেন (ভিটামিন সি), তেল-চর্বি-ঘি-গোশত-মাখন-দোকানের খাবার ইত্যাদি খাওয়া কমিয়ে দিবেন বাকী জীবন। )

সাতটি ঔষধের তালিকা ঃ-

Rx

(1) Thuja occidentalis 30/200/1M/10M

(এই হোমিওপ্যাথিক ঔষধটি ১ ফোটা / ৫ বড়ি করে মাত্র এক মাত্রা খাবেন শুক্রবারে।)

(2) Calcarea Fluorica 30/200/1M/10M

(এই হোমিওপ্যাথিক ঔষধটি ১ ফোটা / ৫ বড়ি করে মাত্র এক মাত্রা খাবেন পরবর্তী শুক্রবারে।)

(3) Aurum metallicum 30/200/1M/10M

(এই হোমিওপ্যাথিক ঔষধটি ১ ফোটা / ৫ বড়ি করে মাত্র এক মাত্রা খাবেন পরবর্তী শুক্রবারে।)

(4) Natrum sulphurica 30/200/1M/10M

(এই হোমিওপ্যাথিক ঔষধটি ১ ফোটা / ৫ বড়ি করে মাত্র এক মাত্রা খাবেন পরবর্তী শুক্রবারে।)

(5) Conium maculatum 30/200/1M/10M

(এই হোমিওপ্যাথিক ঔষধটি ১ ফোটা / ৫ বড়ি করে মাত্র এক মাত্রা খাবেন পরবর্তী শুক্রবারে।)

(6) Silicea 30/200/1M/10M

(এই হোমিওপ্যাথিক ঔষধটি ১ ফোটা / ৫ বড়ি করে মাত্র এক মাত্রা খাবেন পরবর্তী শুক্রবারে।)

(7) Radium bromatum 30/200/1M/10M

(এই হোমিওপ্যাথিক ঔষধটি ১ ফোটা / ৫ বড়ি করে মাত্র এক মাত্রা খাবেন পরবর্তী শুক্রবারে। এরপর পূণরায় ১ নাম্বার ঔষধ থেকে একই নিয়মে খাওয়া আরম্ভ করুন।)

About The Author

DR. MOHAMMAD SHARIFUL ISLAM

নামঃ- ডা. মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম হোমিও হল সংক্ষিপ্ত নামঃ এস এই হোমিও হল

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *